ThePeakPlace

Bangla Technology Center

Sura Abu Lahab (সূরা আবু লাহাব) এর বাংলা অর্থ এবং শানে নুযুল।

পোস্টটি শেয়ার করুণ

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

পরম করুণাময় ও অতি দয়ালু আল্লাহ তায়ালার নামে শুরু করছি।

111.Sura Abu Lahab (সূরা আবু লাহাব)

সূরা আবু লাহাবের আরেক নাম-সূরা আল-মাসাদ।

মোট আয়াতঃ- ৫টি।

নাযিলের স্থানঃ- মক্কা । এজন্য এই সূরাকে মাক্কী সূরা বলে।

১। تَبَّتْ يَدَا أَبِي لَهَبٍ وَتَبَّ

 আবূ লাহাবের দুই হাত ধ্বংসহোক এবং সে নিজেই ধ্বংস হোক।

২। مَا أَغْنَىٰ عَنْهُ مَالُهُ وَمَا كَسَبَ

তার ধন-সম্পদ এবং যা সে অর্জন করেছে তা তার কোন কাজে আসবে না।

৩।سَيَصْلَىٰ نَارًا ذَاتَ لَهَبٍ

অচিরেই সে প্রবেশ করবে লেলিহান শিখাযুক্ত আগুনে,

৪।وَامْرَأَتُهُ حَمَّالَةَ الْحَطَبِ

আর তার স্ত্রীও- যে কাঠবহনকারিণী (ইন্ধন বহনকারিণী)।

৫।فِي جِيدِهَا حَبْلٌ مِّن مَّسَدٍ

তার গলায় শক্ত পাকানো রশি (দড়ি) বাঁধা থাকবে।

শানে নুযুলঃ

সহীহ বুখারীতে হযরত ইবনে আব্বাস (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে যে, নবী করিম (সঃ) বাতহা নামক স্থানে গিয়ে একটি পাহাড়ের উপর আরোহন করলেন এবং উচ্চস্বরে, “ইয়া সাবা’হা’হ ইয়া সাবা’হা” ( অর্থাৎ হে ভোরের বিপদ, হে ভোরের বিপদ) বলে ডাক দিতে শুরু করলেন। অল্পক্ষণের মধ্যে সমস্ত কুরাইশ নেতা সমাবেত হলো। তখন রাসূল (সঃ) বললেন, “যদি আমি তোমাদেরকে বলি যে, সকালে অথবা সন্ধ্যাবেলায় শত্রুরা তোমাদের উপর আক্রমণ চালাবে তবে কি তোমরা আমার কথায় বিশ্বাস করবে?”

তখন সমস্বরে বলে উঠলো, “হাঁ হাঁ অবশ্যই বিশ্বাস করবো”। তখন তিনি তাদেরকে বললেন, “শোনো, আমি তোমাদেরকে আল্লাহর ভয়াবহ শাস্তির আগমনের সংবাদ  দিচ্ছ”। তখন আবু লাহাব একথা শুনে বললো, “তোমার সর্বনাশ হোক, এ কথা বলার জন্যই কি তুমি আমাদেরকে সমবেত করেছো”? তখন আল্লাহ তায়ালা এ সূরাটি নাযিল করেন।

পোস্টটি শেয়ার করুণ

Leave a Reply

ThePeakPlace © 2018 Frontier Theme