সহীহ বুখারী, পঞ্চম খন্ড, অধ্যায়-৪৬, শর্তাবলী।

পোস্টটি করা হয়েছে:- এপ্রি ১৩ ২০১৭ পোস্টটি করেছেন:-

২৫৩০। ইয়াহইয়া ইবনু বুকাইর (রহঃ) … মারওয়ান ও মিসওয়ার ইবনু মাখরামা (রাঃ) রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর সাহাবীগণ থেকে বর্ণনা করেন, সেদিন (সুলহে হুদায়বিয়র দিন) সুহাইল ইবনু আমর যখন সন্ধিপত্র লিখলেন তখন সুহাইল ইবনু আমার রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর প্রতি এরূপ শর্ত আরোপ করল যে, আমাদের কেউ আপনার কাছে আসলে সে আপনার দ্বীন গ্রহন করা সত্ত্বেও আপনি তাকে আমাদের কাছে ফিরিয়ে দিবেন। আর আমাদের ও তার মাঝে হস্তক্ষেপ করবেন না। মুমিনরা এটা অপছন্দ করলেন এবং এতে ক্রুদ্ধ হলেন। সুহাইল এটা ছাড়া সন্ধি করতে অস্বীকার করল। তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সে শর্ত মেনেই সন্ধিপত্র লেখালেন। সেদিন তিনি আবূ জানদাল… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী,৫ম খন্ড, অধ্যায়-৪৫, বিষয়ঃ-সন্ধি ।

পোস্টটি করা হয়েছে:- জুলা ৭ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-

হাদীস নং-২৫১১। সাঈদ ইবনু আবূ মারয়াম (রহঃ) … সাহল ইবনু সা‘দ (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, আমর ইবনু আওফ গোত্রের কিছু লোকের মধ্যে সামান্য বিবাদ ছিল। তাই নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁর সাহাবীগণের একটি জামায়াত নিয়ে তাদের মধ্যে আপস-মিমাংশা করে দেওয়ার জন্য সেখানে গেলেন। এদিকে সালাত (নামায/নামাজ)-এর সময় হয়ে গেল। কিন্তু নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মসজিদে নববীতে এসে পৌছেন নি। বিলাল (রাঃ) সালাত (নামায/নামাজ)-এর আযান দিলেন, কিন্তু নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তখনও এসে পৌঁছেন নি। পরে বিলাল (রাঃ) আবূ বকর (রাঃ)-এর কাছে এসে বললেন, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কাজে ব্যতিব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। এদিকে সালাত (নামায/নামাজ)-এরও সময় হয়ে গেছে। আপনি সালাত (নামায/নামাজ)… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৪২, বিষয়ঃ-মুকাতাব।

পোস্টটি করা হয়েছে:- জুলা ৩ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-

হাদীস নং-২৩৯১। কুতায়বা (রহঃ) … ‘আয়িশা (রাঃ) থেকে বর্ণিত, বারীরা (রাঃ) একবার তার মুকাতাবাতের ব্যাপারে সাহায্য চাইতে আসলেন। তখন পর্যন্ত তিনি মুকাতাবাতের অর্থ থেকে কিছুই আদায় করেন নি। ‘আয়িশা (রাঃ) তাকে বললেন, তুমি তোমার মালিকের কাছে ফিরে যাও। তারা সম্মত হলে আমি তোমার মুকাতাবাতের প্রাপ্য পরিশোধ করে দিব। আর তোমার ওয়ালার অধিকার আমার হবে। বারীরা (রাঃ) কথাটি তার মালিকের কাছে পেশ করলেন। কিন্তু তারা তা অস্বীকার করল এবং বলল, তিনি যদি তোমাকে আযাদ করে সাওয়াব পেতে চান, তবে করতে পারেন। ওয়ালা আমাদেরই থাকবে। ‘আয়িশা (রাঃ) বিষয়টি রাসূলল্লাহ -এর কাছে পেশ করেল তিনি বলেলেন, তুমি খরিদ করে আযাব করে দাও। কেননা… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৩৯, বিষয়:-অংশীদারিত্ব।

পোস্টটি করা হয়েছে:- জুন ১৬ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-

হাদীস নং-২৩২১।আবদুল্লাহ ইবনু ইউসূফ (রহঃ) … জাবির ইবনু আবদুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সমুদ্র তীর অভিমুখে বাহিনী প্রেরণ করেন এবং আবূ উবায়দা ইবন জাররাহ (রাঃ) কে তাদের সেনাপতি নিয়োগ করলেন। এ বাহিনীতে তিনশ’ লোক ছিলেন। আমি তাদের মধ্যে ছিলাম। আমরা রওয়ানা হলাম। কিন্তু মাঝখানেই আমাদের পাথেয় শেষ হয়ে গেল। তখন আবূ উবায়দা (রাঃ) দলের সকলকে নিজ নিজ খাদ্যদ্রব্য  এক জায়গায় জমা করার নির্দেশ দিলেন। তাই সমস্ত খাদ্য দ্রব্য জমা করা হল। এতে মোট দু’থলে খেজুর জমা করা হল। আবূ উবাযদা (রাঃ) প্রতি দিন আমাদের এই খেজুর থেকে কিছু কিছু খেতে দিতেন। অবশেষে তাও শেষ হওয়ার উপক্রম… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৩৭, বিষয়ঃ-পড়ে থাকা বস্তু উঠানো।

পোস্টটি করা হয়েছে:- জুন ১২ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-

হাদীস নং-২২৬৫। আদম মুহাম্মদ ইবনু বাশ্‌শার (রহঃ) … উবাই ইবনু কা’ব (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি একটি থলে পেয়েছিলাম। যার মধ্যে একশ’ দীনার ছিল এবং আমি (এটা নিয়ে) নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কাছে এলাম। তিনি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেন, এক বছর পর্যন্ত ঘোষণা দাও। আমি তাই করলাম। কিন্তু এটি সনাক্ত করার মত লোক পেলাম না। তখন আবার তাঁর কাছে এলাম। তিনি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেনঃ আরো এক বছর ঘোষণা দাও। আমি তাই করলাম। কিন্তু কাউকে পেলাম না। আমি তৃতীয়বার তাঁর কাছে এলাম। তিনি (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেন, থলে ও এর প্রাপ্ত বস্তুর সংখ্যা এবং এর বাঁধন স্মরণ রাখো।… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৩২, বিষয়ঃ-ওয়াকালাত

পোস্টটি করা হয়েছে:- মে ৩১ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-
image of bukhari

হাদীস নং-২১৫২। কাবীসা (রহঃ) আলী (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাকে কুরবানীকৃত উটের গলার মালা ও তার চামড়া দান করার হুকুম দিয়েছেন। হাদীস নং-২১৫৩। আম্‌র ইবনু খালিদ (রহঃ) ওকবা ইবনু আমির (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন যে, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম তাঁকে কিছু বকরী (ভেড়া) সাহাবীদের মধ্যে বণ্টন করতে দিলেন। বণ্টন করার পর একটি বকরীর বাচ্চা বাকী থেকে যায়। তিনি নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম -কে অবহিত করেন। তখন তিনি বললেন, তুমি নিজে এটাকে কুরবানী করে দাও। হাদীস নং-২১৫৪। আবদুল আযীয ইবনু আবদুল্লাহ (রহঃ) আবদুর রহমান ইবনু আওফ (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি উমাইয়া ইবনু খালফের… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৩১, বিষয়:-জামিন হওয়া

পোস্টটি করা হয়েছে:- মে ২৬ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-
image of shahi bukhar

হাদীস নং-২১৪৫। সালত ইবনু মুহাম্মদ (রহঃ) ইবনু আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, — আয়াতে – শব্দের অর্থ উত্তরাধিকারী। আর আয়াতের তাফসীর প্রশংগে তিনি ইবনু আব্বাস (রাঃ) বলেন, মদিনায় মুহাজিরদের নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম – এর কাছে আগমনের পর নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম মুহাজির ও আনসারদের মধ্যে যে ভাতৃত্বের বন্ধন স্থাপন করেন, তার ভিত্তিতে মুহাজিররা আনসারদের উত্তরাধিকারী হত, কিন্তু আনসারদের আত্মীয়-স্বজনরা ওয়ারিস হত না। যখন এ আয়াত নাযিল হল, তখন আয়াতের হুকুম রহিত হয়ে গেল। তারপর তিনি আরো বলেন উপরোক্ত আয়াতের প্রেক্ষিতে মুহাজির ও আনসারদের পারস্পরিক সাহায্য-সহযোগিতা ও আদেশ-উপদেশের হুকুম বাকী রয়েছে। কিন্তু তাদের জন্য মীরাস বা উত্তরাধিকার স্বত্ব রহিত… [বিস্তারিত পড়ুন] »


সহীহ বুখারী, ৪র্থ খন্ড, অধ্যায়-৩০,বিষয়:-হাওয়ালা

পোস্টটি করা হয়েছে:- মে ২৬ ২০১৬ পোস্টটি করেছেন:-
image of shahi bukhari

হাদীস নং-২১৪২। আবদুল্লাহ ইবনু ইউসুফ (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ধনী ব্যাক্তির ঋণ পরিশোধে গড়িমসি করা জুলুম। যখন তোমাদের কাউকে (তার জন্য) কোন ধনী ব্যাক্তির হাওয়ালা করা হয়, তখন সে যেন তা মেনে নেয়। হাদীস নং-২১৪৩। মুহাম্মদ ইবনু ইউসুফ (রহঃ) আবূ হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ধনী ব্যাক্তির পক্ষ থেকে ঋণ পরিশোধে গড়িমসি করা জুলুম। যাকে (তার পাওনার জন্য) ধনীর হাওয়ালা করা হয়, সে যেন তা মেনে নেয়। হাদীস নং-২১৪৪। মক্কী ইবনু ইবরাহীম (রহঃ) সালামা ইবনু আকওয়া (রাঃ) থেকে বর্ণিত যে, তিনি বলেন, একদিন আমরা নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি… [বিস্তারিত পড়ুন] »


: